নতুন অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল কেনার পর করণীয়।

নতুন অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল কেনার পর করণীয়

আপনি একটি নতুন অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল কিনতে চাচ্ছেন বা কিনেছেন তাহলে আজকের এই বিশেষ আর্টিকেলটি আপনার জন্য। আজকের এই আর্টিকেল নতুন অ্যান্ড্রয়েড ফোন কেনার পর কি কি করণীয় ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে টিপস প্রদান করা হবে। আশা করি আপনার নতুন মোবাইল ব্যবহার করার ক্ষেত্রে এই টিপস এন্ড ট্রিক গুলো কাজে আসবে।

নতুন অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল কেনার পর করণীয়

একটি নতুন স্মার্ট ফোন কেনার পর যে সব বিষয়ে খেয়াল রাখা উচিত বা করলে ভালো হয় বলে আমি মনে করি। সেই সম্পর্কিত টিপস এন্ড ট্রিক গুলো আপনাদের কে জানানোর চেষ্টা করব আশা করি আপনাদের কাজে আসবে।

মোবাইল যাচাই করা

মোবাইল কেনার সময় মোবাইলের সব কিছু ঠিক আছে কিনা যাচাই বাছাই করে নিবেন। অনেক সময় ফোনের সাথে চার্জার, সিম কার্ড পিন, বা ব্যাক পার্টের গ্লাস ইত্যাদি ভাঙ্গা থাকতে পারে তাই ফোন কেনার সময় চেক করে নিবেন। এছাড়াও ওয়্যারেন্টি বুঝে নিবেন যাতে পরবর্তীতে দরকার পড়লে কাজে লাগাতে পারেন।

জিমেইল অ্যাকাউন্ট

যারা ইতিমধ্যে অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ব্যবহার করেছেন তারা হয়তো জানেন একটি জিমেইল অ্যাকাউন্ট মোবাইলের জন্য কত গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু যারা অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ব্যবহারে নতুন এটি তার প্রথম কেনা তারা একটু ভুল করে বসে। যদি আপনি একটি মোবাইল কিনবেন তখন সেই অবস্থায় আপনার যদি কোন জিমেইল অ্যাকাউন্ট থাকে সেই জিমেইলটি সাইন ইন করে নিবেন আর যদি না থেকে থাকে নতুন করে তখন খুলে নিবেন। আপনি যে জিমেইল আপনার মোবাইলে সাইন ইন করবেন সেই অ্যাকাউন্ট টি আপনার মোবাইলের সাথে কানেক্ট হয়ে যাবে এবং পরবর্তী এটি অনেক কাজে আসবে।

জিমেইল সাইন ইন থাকলে গুগল প্লে-স্টোর সহ গুগলের অন্যান্য সেবা গুলো ব্যবহার করতে একটি জিমেইল অ্যাকাউন্ট অনেক গুরুত্বপূর্ণ। সেই সাথে আপনার ফটো ব্যাকআপ, কনট্যাক্ট, মেসেজ, সেটিং ইত্যাদি গুগলের সার্ভারে Sync হয়ে থাকে পরে এই জিমেইল লগিনের মাধ্যমে আপনি সব তথ্য গুলো সহজেই পেয়ে যাবেন। আবার যখন আপনি কোন কারণে মোবাইল ফোন রিসেট করবেন তখন ফোন সেটআপ করার সময় আপনার জিমেইল অ্যাকাউন্টটি সাইন করতে বলবে তাছাড়া মোবাইল আনলক হবে না এটি করা হয় সিকিউরিটির জন্য।

যদি কখনো আপনার নতুন অ্যান্ড্র্য়েডটি চুরি হয়ে যায় কেউ রিসেট করে ব্যবহার করার চেষ্টা করে তখন সে বাধাগ্রস্থ হবে যদিও এটি বাইপাস করা যায়। কিন্তু আপনার তো জানার প্রয়োজন তাই কোন জিমেইলটি আপনার মোবাইল ব্যবহার করছেন সেটি মনে রাখাটা আবশ্যক। আবার অনেক মোবাইল দোকানদার নিজেদের জিমেইল আপনার ফোনে সাইন ইন করে দিতে পারে যা করেও নেওয়া উচিত নয় কারণ জিমেইল বিভিন্ন ধরনের প্রয়োজনীয় জিনিস গুলো আপলোড হয়ে থাকে যেমন ফটো, মোবাইল নাম্বার, নোটস ইত্যাদি। আর এই জিনিস গুলো Sync হয়ে গেলে ঐ জিমেইল মালিক আপনার জিনিস গুলো দেখতে পারে তাই জিমেইল নিয়ে একটু সাবধানতা অবলম্বন করা ভালো।

ক্লাউড অ্যাকাউন্ট

বর্তমান সময়ের প্রায়ই মোবাইল গুলোতে ক্লাউড ব্যাকআপ সিস্টেম সার্পোট করে থাকে যেমন শাওমি মোবাইলের রয়েছে MI Account. যদি আপনার ফোনেরও এই রকম কোন ক্লাউড সার্ভিস থাকে তাহলে সেটিতে অ্যাকাউন্ট করে রাখা ভালো। কারণ এইসব অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে আপনার মোবাইলের কনটাক্ট নাম্বার, নোটস, মেসেজ,ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক, সেটিংস ইত্যাদি ক্লাউডে Sync করে রাখতে পারবেন পরে মোবাইল রিস্টোর দিলে অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করে সহজেই আগের সেটিংস গুলো অটোমেটিক চলে আসবে। আপনার মোবাইলের কোম্পানির জন্য এমন সার্ভিস থাকলে সেটি অ্যাকাউন্ট করে Sync অন করে রাখতে পারেন।

গরিলা গ্লাস ব্যবহার করা

আমরা সবাই জানি গরিলা গ্লাস মোবাইলের স্ক্রিন কে বিভিন্ন দূর্ঘটনা ঘটার হাত থেকে রক্ষা করে থাকে। এখন মোবাইলের সাথে বক্সের মধ্যে একটি করে গরিলা গ্লাস ফ্রিতে পাওয়া যায় যদি আপনার মোবাইলের সাথে দিয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই সেটি লাগিয়ে নিন। আবার অনেকে মোবাইলের সাথে গরিলা গ্লাস ফ্রি তে দেয় না তারা কিনে নিয়ে ব্যবহার করবেন। গরিলা গ্লাস আপনার নতুন অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলকে ডিসপ্লে নষ্ট হওয়ার হাত থেকে অনেকটা বাঁচাবে তাছাড়া হুট করে হাত থেকে যদি ফোন পড়ে যায় তাহলে খেল খতম।

ফোন কেস ব্যবহার করা

নতুন অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলটি যেহেতু প্রতিদিন ব্যবহার হয়ে থাকবে সেই ব্যবহার করতে গিয়ে অনেক সময় দেখা যায় স্ক্র্যাচ পড়ে, দাগ পড়ে ইত্যাদির হাত থেকে বাঁচার অন্য একটি কেস ব্যবহার করার চেষ্টা করুন। যারা ফোনের বাইরের লুকটা দেখতে বা দেখাতে পছন্দ করেন তারা ট্রান্সপারেন্ট কেসিং ব্যবহার করতে পারেন।

মোবাইল সিস্টেম আপডেট করা

অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলটি কেনার পর আরেকটি জিনিস চেক করে নিবেন আপনার মোবাইলের অপারেটিং সিস্টেমের কোন আপডেট এসেছি কিনা। যদি আপডেট এসে থাকে তাহলে ফোনটি আপডেট করে নিন এতে করি যদি কোন সমস্যা এরর ত্রুটি থাকে সেই গুলো সমাধান হয়ে যাবে।

ক্যামেরা ফটো লোকেশন

আমরা ক্যামেরা দিয়ে যেসব ছবি তুলি সেই সব ছবি গুলো ডিফল্ট ভাবে ফোনে মেমোরিতে স্টোর হয়ে থাকে। এতে দেখা যায় যাদের ফোন মেমোরি কম তাদের মেমোরি খুব তাড়াতাড়ি ভর্তি হয়ে যায় এটি থেকে মুক্তি পেতে হলে আগেই থেকেই ক্যামেরা দিয়ে তোলা ছবি সেভ হওয়ার লোকেশন SD Card করে দিন। এছাড়াও প্রয়োজনে মোবাইল রিসেট দিলে ফটো ব্যাকআপ না নিয়ে তাহলে ছবি গুলো হারাবেন তাই SD Card এ ছবি সেভ রাখা ভালো। ডিফল্ট লোকেশন চেঞ্জ করার জন্য ক্যামেরা অ্যাপ ওপেন করে সেটিং গিয়ে স্টোরেজ সেটিংস থেকে SD Card করে দিন।

গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস (Find My Device)

গুগলের একটি সার্ভিস হলো Find My Device এর মাধ্যমে হারিয়ে যাওয়া ফোন বের করতে সাহায্য পাওয়া যায়। অনেক সময় আমাদের ফোন হারিয়ে যায় এই রকম বিপদ থেকে রক্ষ পাওয়ার জন্য Find My Device অপশনটি অন রাখতে পারেন এতে করে যখন আপনার মোবাইল টি হারিয়ে যাবে তখন সহজেই খুঁজে পেতে সাহায্য পাবেন।

ব্লোটওয়ার অ্যাপ আন ইনস্টল

মোবাইল কেনার পর লক্ষ্য করে থাকবেন আগের থেকে কিছু আপ ইনস্টল করা থাকে মোবাইল যেগুলো ততোটা প্রয়োজনীয় না ঐ গুলো কে মূলত ব্লোটওয়ার অ্যাপ বলা হয়ে থাকে। মোবাইল কোম্পানি কে ঐ অ্যাপ গুলো অর্থ প্রদান করে মোবাইলে আগের থেকে অ্যাপ গুলো ইনস্টল করে রাখার জন্য। কিন্তু এতে ভেজাল হয় ইউজারের তাই মোবাইল কেনার পর এইসব ফালতু যেগুলো আপনার কাছে দরকারী পমনে হবে না সেই সব অ্যাপ গুলো আন ইনস্টল করে দিবেন। নতুন অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল কেনার পর এই কাজটি করলে আপনার ফোনে মেমোরি একটু স্পেস এবং র‍্যাম খরচা টা কমে যাবে।

সিস্টেম অ্যাপ আপডেট

নতুন অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল কেনার পর আরেকটি যে কাজ করবেন সেটি হলো মোবাইলের যেসব সিস্টেম অ্যাপ গুলো রয়েছে সেইগুলোর যদি আপডেট এসে থাকে তাহলে আপডেট দিয়ে নিবেন। যদি তাদের বর্তমান ভার্সনে কোন সমস্যা থাকে তাহলে আপডেটে সেটি ফিক্স করে ফেলতে পারে।

প্রয়োজনীয় অ্যাপ ইনস্টল

মোবাইল কেনার পর দরকারি অ্যাপ গুলো ইনস্টল করতে পারেন যেমন টাইপিন এর জন্য রিদ্মিক কীবোর্ড, সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ, প্রোডাক্টিভিটি অ্যাপ ইত্যাদি। আপনার প্রয়োজনের উপর ভিত্তি করে দরকারি অ্যাপ গুলো ইনস্টল করে নিন।

আরো পড়ুনঃ

ইমেইল এ ফেসবুক নোটিফিকেশন যাওয়া বন্ধ করার নিয়ম?

পুরাতন মোবাইল কেনার আগে করণীয়।

১ মেগাবাইটের সেরা ৫টি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ।

৮টি শিক্ষণীয় ওয়েবসাইট সম্পর্কে জানুন।

You May Also Like

About the Author: Techmaster BD

প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য ও টিপস এন্ড ট্রিক জানতে ও জানাতে পছন্দ করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!