Android Tips

পুরাতন মোবাইল কেনার আগে করণীয়।

পুরাতন মোবাইল কেনার আগে করণীয় বিষয়ঃ একটি অ্যান্ড্রয়েড বা স্মার্টফোনা আমাদের দৈনন্দিন জীবনের সঙ্গী ও প্রয়োজনীয় জিনিস হয়ে দাঁড়িয়েছে। বর্তমান সময়ে নানা কাজে সবার একটু কম দামী হলেও মোবাইল দরকার হয়ে থাকে। কিন্তু সবার সামর্থ্য হয় না ১৫-২০ হাজার দিয়ে আবার এর কমবেশি দিয়ে একটা নতুন মোবাইল ফোন কেনার তখন তারা পুরাতন মোবাইল কেনার আগ্রহ প্রকাশ করে থাকে যাতে কম টাকায় একটি চলার মতো মোবাইল হয়ে যায়।

পুরাতন মোবাইল কিনতে গিয়ে অনেক সময় না বুঝে শুনে একটি মোবাইল ফোন কিনে ধোকা খাওয়ার চেয়ে এই আর্টিকেলটি পড়ুন আশা করি পুরাতন মোবাইল ফোন কেনার আগে আপনার অনেকটা কাজে আসবে। বর্তমান সময়ে পুরাতন মোবাইল ফোন কেনা অনেকটা ঝুঁকিপূর্ণ ও হয়ে থাকে। তো পুরাতন মোবাইল ফোন কেনার আগে কি কি বিষয়ের দিকে গুরুত্ব দেওয়া উচিত সেটি নিয়ে আজকের সংক্ষিপ্ত আলোচনা।

১। চুরি করা মোবাইল ফোন কেনা থেকে বিরত থাকুন

কম দামে ভালো পুরানো মোবাইল পাওয়ার জন্য অনেকেই চোরাই বাজার থেকে পুরাতন মোবাইল কিনে থাকে যা অনেক ভয়াবহ হতে পারে। আবার অনেকেই আছে কোন চুরি করা ফোন কিনতে চাই না তবুও ধোকা খেয়ে চুরি করা মোবাইল ভুলে কিনে ফেলে। যখন কোন মোবাইল কিনবেন তখন বিক্রেতার কাছে থেকে অবশ্যই মোবাইল কেনার রশিদ দেখে নিবেন সেটি দেখলেই বুঝতে পারবেন মোবাইলটি তার কিনা। যদি রশিদ দেখাতে ব্যর্থ হয় তাহলে ঐ ফোনটি না কেনাই ভালো বলে মনে করি।

যদি কখনো এই রকম চুরি করা মোবাইল কিনে থাকেন এবং সেই মোবাইলের আসল মালিক যদি এটির পুলিশ রিপোর্ট করে তাহলে এক সময় ধরা খেয়ে যাবেন। তারপর হয়তো আপনাকে পুলিশের সম্মুখীন হওয়া লাগতে পারে জবাবদিহিতা দিতে হতে পারে। তাই সব সময় পুরাতন মোবাইল কেনার আগে যাচাই বাছাই করে নিবেন মোবাইলটি  আসলেই তার কিনা এবং অবশ্যই রশিদ চেক করবেন।

২। মোবাইল কনফিগারেশন যাচাই

পুরাতন মোবাইল কেনার আগে অবশ্যই সেই মোবাইল ফোনের কনফিগারেশন যাচাই বাছাই করে নিবেন। আপনি কি ধরনের কাজ করবেন তারপর ভিত্তি করে আপনাকে মোবাইল নির্বাচন করতে হবে। আপনি যদি গেম খেলার জন্য মোবাইল কিনতে তাহলে তার জন্য বিশেষ নজর দিতে হবে। আবার আপনি যদি শুধু সাধারণ কাজে যেমন ইন্টারনেট ব্রাউজিং, ছোট খাটো গেমস, ফেসবুক, ইউটিউব চালানো, কথা বলা ইত্যাদি তাহলে আপনাকে আরেক ভাবে যাচাই করতে হবে।

যে কোম্পানির বা মডেলের মোবাইল নিচ্ছেন সেটির র‍্যাম কত, ফোন মেমরি কত, ক্যামেরা কোয়ালিটি কেমন, প্রসেসর কেমন এইসব বিষয় গুলো দেখে তারপর কিনবেন। সেই সাথে অনলাইন থেকে মোবাইলটির দাম দেখে নিবেন তাছাড়া অনেক সময় পুরান মোবাইল হিসেবেও অনেকে বেশি দাম দিয়ে সেল করে।

৩।  ব্যাটারি হেলথ চেক করুন

মোবাইলের ব্যাটারি যত ভালো ও পাওয়ারের (mAh) হবে তত বেশি সময় ধরে মোবাইলটি ব্যবহার করতে পারবেন। এই জন্য মোবাইলের ব্যাটারি ভালো থাকা গুরুত্বপূর্ণ অনেক সময় পুরাতন মোবাইলের ব্যাটারি তেমন ভালো হয় না ডামেজ হয়ে যায় ফুলে যায়। বর্তমান যেসব মোবাইল রয়েছে সেই মোবাইল গুলো নন-রিমুভাল ব্যাটারি হয়ে থাকে মানে ব্যাটারি খোলা যায় না। আগের মোবাইল গুলো ছিল রিমুভাল মানে পিছনের ব্যাকপার্ট খুলে আমার ব্যাটারি খোলা মেলা করতে পারতাম। যেসব নন-রিমুভাল মোবাইল সেইগুলোর তো ব্যাটারি খুলে চেক করতে পারবেন না ঐ গুলা আপনাকে ব্যবহার করেই দেখতে হবে যদিও এই মোবাইলের ব্যাটারি সহজেই নষ্ট হয় না।

আপনার কিনতে চাওয়া পুরাতন যদি রিমুভাল হয় তাহলে ব্যাটারি খুলে চেক করবেন সেটি ফুলে গেছে কিনা ইত্যাদি বিষয় গুলো। এছাড়াও বিভিন্ন ব্যাটারি হেলথ চেকার অ্যাপ আছে ঐগুলো দিয়ে চেষ্টা করে দেখতে পারেন। তো পুরাতন মোবাইল ফোন কেনার আগে অবশ্যই ব্যাটারি চেক করে নিবেন।

৪। মিনিমাম ২ জিবি র‍্যাম

অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল যখন শুরু দিকে আসে তখন এটির জন্য তৈরী করা অ্যাপ গুলো ছোট খাটো সাইজের হয়তো। কিন্তু যতদিন গেছে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিংস ততো উন্নত হয়েছে যার ফলে যে মোবাইল অ্যাপ গুলো তৈরী হচ্ছে সেই গুলো একটা ভালো পরিমাণে ফোনে মেমোরি ও র‍্যামের জায়গা দখল করছে। বর্তমান যেসব অ্যাপ গুলো রয়েছে সেইগুলো চালানোর জন্য কমপক্ষে দুই জিবি র‍্যামওয়ালা মোবাইল হলে ভালো হয় তাহলে মোটামুটি একটা ভালো করে ব্যবহার করতে পারবেন।

৫। হার্ডওয়্যার ত্রুটি যাচাই

মোবাইল বিক্রেতা অনেক সময় তার মোবাইলের কোন হার্ডওয়্যার নষ্ট হয়ে যাওয়ার জন্য বিক্রি করে দিয়ে থাকে যেমনঃ টাচ নষ্ট হয়ে যাওয়া, ডিসপ্লে ফেটে যাওয়া, স্পিকার নষ্ট, নেটওয়ার্ক আইসি নষ্ট ইত্যাদি। এর মধ্যে কিছু হার্ডওয়্যার নষ্ট হলে বাইরে থেকে দেখা মুশকিল কিন্তু আর যেগুলো দেখা সেইগুলো তো নিজেই বুঝত পারবেন। যখন মোবাইল টি কিনবেন অবশ্যই চেক করে দেখুন সব ঠিকঠাক মতো কাজ করছে কি না।

৬। সময় নিয়ে দেখা

মোবাইল বিক্রেতা যদি আপনার পরিচিত বা আসে পাশের হয়ে থাকে তাহলে সম্ভব হলে তার কাছে থেকে সময় নিয়ে ফোনটি দুই দিন ব্যবহার করে দেখুন। মোবাইল ফোনটি দুই তিন ব্যবহার করলে বুঝতে পারা যাবে এর কোন সমস্যা আছে কিনা চার্জ কেমন থাকে ইত্যাদি বিষয় গুলো। পুরাতন মোবাইল কেনার আগে এটি একটি কার্যকর উপায় হতে পারে ভালো জিনিস পাবার।

৭। IMEI Number চেক করুন

পুরাতন মোবাইল কেনার আগে অবশ্যই তার IMEI Number সঠিক আছে কিনা চেক করবেন। চেক করার জন্য মোবাইলে ডায়াল প্যাডে গিয়ে *#06# ডায়াল করুন তারপর যে নাম্বার টি আসবে সেটি ঐ মোবাইলের বক্সের গায়ে লেখা থাকা IMEI নাম্বার বা রশিদে থাকা নাম্বারের সাথে মিলিয়ে দেখে নিবেন। অনেক সময় চুরি করা মোবাইলের আইএমইআই পরিবর্তন করে বাজারে বিক্রি করা হয়ে থাকে।

৮। চার্জিং পোর্ট ও চার্জার যাচাই করা

অনেক সময় পুরাতন মোবাইলের চার্জিং পোর্ট গুলো নষ্ট হয়ে থাকে ফলে ভালো মতো চার্জ উঠে না। পুরাতন মোবাইলের সাথে সাধারণত কেউ চার্জা দেয় না কিন্তু আপনি অবশ্যই নেওয়ার চেষ্টা করবেন আর নেওয়ার সময় দেখে নিবেন চার্জা ঠিক মতো ফোন চার্জ করছে কিনা, আবার চার্জার টি আসলেই ঐ মোবাইল কোম্পানির কিনা।

৯। ক্যামেরা যাচাই করা

আপনি যদি মোবাইল ছবি তোলার উদ্দেশ্য কিনে থাকেন বা ছবি তোলার সাথে সাথে অন্যান্য কাজ গুলো আপনি মোবাইলে করে থাকেন তাহলে অবশ্যই ক্যামেরার কোয়ালিটির দিকে নজর দেওয়া উচিত। ক্যামেরা কেমন ছবি তুলছে কত মেগা পিক্সেলের ক্যামেরা ইত্যাদি বিষয় গুলো ভালো করে পর্যবেষণ করে নিবেন।

১০। সর্বশেষ দাম নির্ধারণ করা

সব যাচাই বাছা করা পর দাম নির্ধারণের পালা দাম টা এমন পর্যায়ে বলবেন যে বিক্রি করছেন তারও যেন ক্ষতি না হয় আপনার ও যেন লস না হয়। সাধারন নতুন যেকোন জিনিস এক বছর পুরাতন হওয়ার পর পরই মানুষ তার দাম অর্ধেক করে দেয় তাই আপনিও চেষ্টা করুন অর্ধেক দামে মূল দামের ৫০-৭০% দিয়ে কেনার। যদিও দাম টি নির্ভর করবে মোবাইলের অবস্থায় উপর মোবাইল যদি ভালো অবস্থায় থাকে তাহলেই অবশ্যই একটু ভালো দাম নিবে বিক্রেতা

আশা করি, এই ১০টি টিপস পুরাতন মোবাইল কেনার আগে আপনার কাজে আসবে। আর্টিকেল টি ভালো লাগলে বন্ধুদের সাথে অবশ্যই শেয়ার করতে ভুলবেন না, ধন্যবাদ।

আরো পড়ুনঃ 

ইনকগনিটো মোড কি? Incognito মোডের ব্যবহার।

জনপ্রিয় ৫টি পেইড সফটওয়্যারের ফ্রি অল্টারনেটিভস সফটওয়্যার।

৫ টি ইউটিউব ব্রাউজিং টিপস এন্ড ট্রিক।

Techmaster BD

প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য ও টিপস এন্ড ট্রিক জানতে ও জানাতে পছন্দ করি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
error: Content is protected !!