Tips & Tricks

৫টি দরকারি ওয়েবসাইট যা আপনার কাজে আসতে পারে।

ইন্টারনেটে অসংখ্য ওয়েবসাইট ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে তার মধ্যে এমন ৫টি দরকারি ওয়েবসাইট শেয়ার করব যা আপনার নিত্যদিনের কাজে আসতে পারে। ইন্টারনেট মানেই অসংখ্য ওয়েবসাইটের সমারহ যেখানে বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইট রয়েছে যেমন ইকমার্স, সোশাল মিডিয়া, ভিডিও স্ট্রিমিং, ইমেইল সার্ভিস ইত্যাদি। কিন্তু এইসবের মধ্যেও রয়েছে কিছু সেরা ওয়েবসাইট যেগুলো আপনার ইন্টারনেট ব্যবহার করার অভিজ্ঞতা কে আরো ভালো করে তুলবে।

টেক মাস্টার বিডি আপনাদের সাথে আজ যে ৫টি প্রয়োজনীয় ও দরকারি ওয়েবসাইট শেয়ার করতে যাচ্ছে যেগুলো সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে প্রযুক্তি প্রেমীদের সহ সকল মানুষের কাজে আসবে। এই ওয়েবসাইট গুলো আপনার বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করতে পারেনে কিভাবে ব্যবহার করবেন তার একটি উদাহরণ সাইটের কি কাজ সেই সম্পর্কে সংক্ষেপে বর্ণনা করার চেষ্টা করব।

৫টি দরকারি ওয়েবসাইট যা আপনার কাজে আসতে পারে

প্রয়োজনী ওয়েবসাইট গুলোর লিংক ও তার কাজ সংক্ষেপে বর্ণনা করা হলোঃ

১। prnt.sc

image hosting

প্রথম যে ওয়েবসাইট শেয়ার করতে যাচ্ছি সেটি হলো একটি ইমেজ হোস্টিং বা ইমেজ শেয়ারিং ওয়েবসাইট বলতে পারেন। এই ওয়েবসাইট যেকোন ইমেজ বা স্ক্রিনশট আপলোড করতে পারবেন এবং আপলোড করা শেষে একটি লিংক পাবেন যেটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করলে দেখতে সে দেখতে পারবে। এখন প্রশ্ন হলো এই সাইট আপনার কি কাজে আসবে? অনেক সময় আমরা ফেসবুকে চ্যাটিং করার সময় বিভিন্ন স্ক্রিনশট বা ছবি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে থাকি আর এই ছবি বা স্ক্রিনশট গুলো যদি লম্বা হয় তাহলে ফেসবুকে আপলোড বা মেসেজে দেওয়ার পর কোয়ালিটি খারাপ হয়ে যায়।

যার ফলে ফ্রেন্ডকে সেই ইমেজে থাকা জিনিস গুলো স্পষ্টভাবে বুঝা বা দেখা যায় না ঠিক এই জায়গা তে আপনি এই ওয়েবসাইট কে কাজে লাগাতে পারেন। আপনার মোবাইল বা পিসি থেকে prnt.sc সাইট টি ভিজিট করে আপনার স্ক্রিনশট বা ছবিটি সিলেক্ট করে আপলোড করে দিন তারপর একটা লিংক পাবেন সেটি ফ্রেন্ডের সাথে শেয়ার করুন তাহলে একদম ক্লিয়ার ও কোয়ালিটির ছবি লিংকে ঢুকে আপনার ফ্রেন্ডরা দেখতে পারবে।

এছাড়াও এই ওয়েবসাইট টি যেসব কাজে ব্যবহার করতে পারেনঃ

  • আপনি যদি ব্লগার হয়ে থাকেন তাহলে আপনি এই ওয়েবসাইট টি কে ইমেজ হোস্টিং সাইট হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন। একটি ব্লগ পোস্ট লেখার সময় প্রয়োজন মতো বিভিন্ন ফটো বা ইমেজ অথবা স্ক্রিনশট যুক্ত করতে হয়। এই ছবি গুলো সাধারণত আমরা আমাদের হোস্টিং সার্ভারে আপলোড করে থাকে যার ফলে একটা স্পেস ইমেজ গুলো নিয়ে থাকে। তো যারা চাচ্ছেন এক্সটারনাল সোর্স থেকে ইমেজ ব্যবহার করতে তারা এই ওয়েবসাইট টি ব্যবহার করতে পারেন। যে ইমেজ আপনার ব্লগে যুক্ত করতে হবে সেটি আপলোড করলে তার লিংক পেয়ে যাবেন সেই ইমেজটার লিংক নিয়ে ব্লগে ইমেজ ট্যাগে দিয়ে দিবেন তাহলেই হবে।
  • সোশাল মিডিয়াতে বড় বা লম্বা হাই রিজুলেশনের ছবি শেয়ার করার জন্য এটি ব্যবহার করতে পারেন।
  • ফ্রি ইমেজ হোস্টিং সার্ভার হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন।

২। Gofile.io

Gofile.io file sharing platform

Gofile একটি ফাইল শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম ও ফ্রি স্টোরেজ মিডিয়া, যেখানে ফ্রিতে আনলিমিটেড সাইজের ফাইল আপলোড বা স্টোর করে রাখতে পারবেন। এই ওয়েবসাইট আপনারা কোন ধরনের অ্যাকাউন্টের ছাড়া যেকোন ধরনের ফাইল আপলোড করতে পারবেন এবং আপলোড করার একটি লিংক পাবেন সেই লিংক শেয়ার করলে ঐ ফাইলটির ডাউনলোড পেজ পাবেন। অনেক সময় আমাদের বিভিন্ন কাজে ফাইল শেয়ার করার প্রয়োজন পড়ে থাকে সেটা হতে পারে ইমেইল বা কোন সোশাল মিডিয়াতে কিন্তু এইখানে একটা সমস্যা রয়েছে সেটি হলো ফাইল আপলোড লিমিট সাইজ।

বিভিন্ন সোশাল মিডিয়া বা ইমেইল একটি নির্দিষ্ট সাইজ মানে মেগাবাইট পর্যন্ত ফাইল আপলোড লিমিট থাকে যার অধিক হয়ে গেলে ফাইলটি যুক্ত করতে দেয় না। আবার দেখা গেছে গুগল ড্রাইভে আপলোড করবেন ফাইলটি ভাইরাস হিসাবে দেখাচ্ছে। কখনো কখনো দেখা গেছে ফাইল আপলোড করে দিতে হবে কিন্তু গুগল ড্রাইভে লগিন নেয় তখনও এই ওয়েবসাইটটি কে আপনারা কাজে লাগাতে পারেন। ফাইল শেয়ারিং এর জন্য একটি অসাধরণ ওয়েবসাইট এটি।

৩। Pastebin.com

Pastebinপেস্ট বিন নামটা শুনেই হয়তো অনেকে ধারণা করতে পেরেছেনে এই ওয়েবসাইটটি কপি পেস্ট সম্পর্কিত কিছু। যদি আপনি ঠিক এই ধারণা করে থাকেন তাহলে আপনি সঠিকই ভেবেছেন এই ওয়েবসাইটে বিভিন্ন ধরনের কোড পেস্ট করে শেয়ার করতে পারবেন। যে বা যারা কোডিং বিষয়টার সাথে জড়িত তাদের জন্য এটি একটি সুন্দর কাজের ওয়েবসাইট হতে পারে। অনেক সময় বন্ধুদের সাথে কিছু গুরুত্বপূর্ণ কোড ফেসবুকে বা অন্য কোথায়ও শেয়ার করতে গেলে বা সেন্ড করলে কেমন জানি অগুছানো অবস্থায় যায়। আর ঐ অবস্থায় কোড পড়তে ও দেখতে একদমই ভালো লাগে না। এই সময় আপনাদের জন্য কাজে আসবে পেস্টবিন ওয়েবসাইটটি আপনি এই ওয়েবসাইটে ভিজিট করে যেকোন কোড পেস্ট করে দিয়ে একটি লিংক তৈরী করতে পারবেন যেই লিংকে ঢুকলেই যাকে শেয়ার করেছেন লিংকটা সে কোড গুলা দেখতে পারবে। সাইট আপনারা আরো নিজেদের প্রয়োজনে অন্যভাবে ব্যবহার করতে পারেন আমি শুধু সাইটটির কাজটা বলে দিলাম।

৪। Remove.bg

online background remove

Remove.bg একটি ফটো ইডিটিং এর জন্য অসাধারণ একটি ওয়েবসাইট, এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে যেকোন ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড কয়েক সেকেন্ডে একদম সুন্দরভাবে রিমুভ করতে পারবেন। একটি ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করার জন্য ফটোশপ বা অন্যান্য প্রফেশনাল সফটওয়্যার ম্যানুয়ালী রিমুভ করা যেমন কঠিন অনেকের কাছে ঠিক তেমন সময় সাপেক্ষ। এই সময়ের কাজটি আপনি কয়েক সেকেন্ডে করতে পারবেন। যেকোন ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করার জন্য ওয়েবসাইটটি ভিজিট করুন তারপর যে ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করতে চান সেই ছবি আপলোড করুন তারপর কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ ভার্সন ছবিটি পাবেন সেটি ডাউনলোড করে নিয়ে যেকোন ব্যাকগ্রাউন্ডে ব্যহার করতে পারেন। আপনার জন্য এই ওয়েবসাইটটি দরকারী ওয়েবসাইট হিসাবে কাজ করতে পারে ফটো ইডিটিং করার সময়।

৫। Docfly.com

best online pdf editing tool

Docfly একটি বেস্ট অনলাইন পিডিএফ ইডিটর টুল, এই ওয়েবসাইটে যেকোন পিডিএফ ফাইল আপলোড করে সেই পিডিএফ নিজের প্রয়োজন মতো ইডিট করতে পারবেন। এছাড়াও গুগল, ড্রপ বক্স ক্লাউড স্টোরেজে যদি আপনার সেই পিডিএফটি থাকে তাহলে আপলোড করার ছাড়া ডাইরেক্ট সেইখান থেকে সিলেক্ট করে ইডিটিং করতে পারবেন। এর জন্য অবশ্য আপনাকে গুগল ড্রাইভ ও ড্রপ বক্সের পারমিশন অ্যাক্সেস দিতে হবে।

আশা করি, এই ছোট্ট ৫টি দরকারি ওয়েবসাইট আপনাদের দৈনন্দিন জীবনে কোন না কোন সময় কাজে আসবে। ততক্ষণ ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন আল্লাহ হাফেজ।

ধন্যবাদ

আরো পড়ুনঃ

ভিপিএন কি? ভিপিএন ব্যবহারের সুবিধা।

কম্পিউটার স্লো হওয়ার কারণ | স্লো হলে করণীয়।

মোবাইল স্লো সমস্যার সমাধান নিয়ে নিন।

Techmaster BD

প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য ও টিপস এন্ড ট্রিক জানতে ও জানাতে পছন্দ করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
error: Content is protected !!