Website Tips

কিভাবে গুগল সার্চ কনসোল এ আপনার ওয়েবসাইট সাবমিট করবেন।

আপনি যদি একটি নতুন ওয়েবসাইটের মালিক হয়ে থাকেন তাহলে আপনার ওয়েবসাইট টি গুগল সার্চ কনসোল এ যুক্ত করা গুরুত্বপূর্ণ একটি কাজ। গত একটি টিউটোরিয়ালে আমরা শিখেছিলাম কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে এসইও করার জন্য প্লাগিন ইনস্টল করতে হয় আজকের আর্টিকেলে সংক্ষেপে জানবো গুগল সার্চ কনসোল কি? কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট বা অন্য ওয়েবসাইট গুলো Google Search Console সাবমিট করার উপায়।

আরো পড়ুনঃ  Rank Math এসইও প্লাগিন ইনস্টল ও সেটআপ পদ্ধতি।

Google Search Console কেন দরকার?

গুগল সার্চ কনসোল কি সেটা জানার জন্য প্রথমে আমাদের কে জানতে হবে এটি কেন দরকার। আপনি যেহেতু ওয়েবসাইট নিয়ে কাজ করছেন সেহেতু SEO কি জিনিস সেটি অবশ্যই হালকা হলেও কিছু জানেন। একেকটি ব্লগিং ওয়েবসাইট থেকে সফল হতে সেই ওয়েবসাইট অবশ্যই ভিজিটরের প্রয়োজন আর এই ভিজিটর নিয়ে আসার টেকনিক হলো এসইও। সোজা কথা বলতে যখন কেউ কোন নির্দিষ্ট টপিক নিয়ে গুগল সার্চ ইঞ্জিনে সার্চ করবে তখন সেইখানে আপনার ওয়েবসাইট দেখাতে হবে কারণ ঐখান থেকে আমরা ভিজিটর পাবো।

যেহেতু সার্চ ইঞ্জিন হিসাবে সবচেয়ে জনপ্রিয় গুগল তাই ওয়েবসাইট এসইও বা সাবমিট করার জন্য মানুষ বেশি গুগলকে ফোকাস করে থাকে। তো আপনার নতুন ব্লগটি গুগলে দেখাতে চাইলে অবশ্যই আপনাকে গুগলে আপনার ওয়েবসাইট গুগলে সাবমিট করতে হবে তারপর আপনার ওয়েবসাইট থেকে গুগল সব তথ্য নিয়ে রাখবে এবং যখন কেউ সার্চ করবে গুগলের কাছে আপনার আর্টিকেলটি ভালো মনে হলে এসইও ঠিক থাকলে প্রথম পেজ বা আপনার কনটেন্ট কতটা ভালো তারপর ভিত্তি করে একটা র‍্যাংক দিবে। তখন আপনার ওয়েবসাইটে এভাবে ভিজিটর আসা শুরু হবে আর এই কাজ গুলা করার জন্যই গুগল সার্চ কনসোল প্রয়োজন পড়ে।

গুগল সার্চ কনসোল কি?

ওয়েবমাস্টার বা ওয়েবসাইট মালিকদের জন্য এটি একটি গুগলের টুল বক্স বলা যেতে পারে যেখানে আপনি আপনার ওয়েবসাইটে গুগলে সো করার জন্য রিকুয়েষ্ট করতে পারবেন শুরুতে। যখন গুগল আপনার ওয়েবসাইট গুলো ইনডেক্স করবে একটা নির্দিষ্ট সময় পর থেকে আপনি দেখতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইটে কোন টপিক সার্চ করে মানুষ ভিজিট করছে। কোন আর্টিকেল বা লিংকে ভিজিটর আসতেছে এছাড়াও এসইও নিয়ে যদি কোন সমস্যা থাকে সেই গুলো গুগল সার্চ কনসোল ধরিয়ে দিবে এবং সংশোধন করতে হবে।

একটি ওয়েবসাইট এসইও করার জন্য এবং ওয়েবসাইটে গুগল সার্চ ইঞ্জিন থেকে কি পরিমাণে ট্রাফিক মানে ভিজিটর আসছে সেই জিনিস গুলো গুগল সার্চ কনসোল এর মাধ্যমে পর্যবেক্ষণ করতে পারবেন। Google Search Console কি এবং কিভাবে এটি কাজ করে বিস্তারিত আলোচনা করতে গেলে পোস্ট বড় হয়ে যাবে এবং সেই সাথে আগে থেকে কিছু জানা থাকা লাগবে ভালো করে বুঝতে। তাই আমি এইখানে শুধু সংক্ষেপে একটা ছোট ধারণা দিলাম আর যে বিষয়টা দেখাবো সেটা হলো গুগল সার্চ কনসোলে ওয়েবসাইট সাবমিট করার পদ্ধতিটা যেহেতু আপনার পোস্টের টাইটেল দেখে এসেছেন আশা করি হালকা হলেও জ্ঞান আছে বুঝতে পারবেন।

কিভাবে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট গুগল সার্চ কনসোলে সাবমিট করবেন?

আমি টাইটেলে বলেছি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট কিভাবে গুগল সার্চ ইঞ্জিনে দেখাবেন কিন্তু আপনি এই পদ্ধতি আপনার অন্য সাইট যেমন ব্লগার ওয়েবসাইট গুলো অথবা অন্য ওয়েবসাইট গুলো সাবমিট করতে পারবেন। আমি যেহেতু ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারকারী তাই ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে কিভাবে করতে হয় সেটি দেখাচ্ছি।

আপনাদের বুঝার সুবিধার জন্য স্ক্রিনশট যুক্ত করার হয়েছে না বুঝলে স্ক্রিনশটের লাল মার্ক করা অংশ খেয়াল করুন তাহলে আশা করি বুঝে যাবেন।

১। গুগলে ওয়েবসাইট সাবমিট করার জন্য আপনার ব্রাউজার ওপেন করুন এবং জিমেইল লগিন না থাকলে জিমেইল লগিন করে নিন। লগিন করার পর এই ওয়েবসাইটে যেতে হবে https://search.google.com/search-console/welcome তারপর নিচের স্ক্রিনশটের মতো ইন্টারেস পাবেন এখানে আপনাকে প্রথমে ওয়েবসাইট ভেরিফাই করা লাগবে। যে ওয়েবসাইট টা আপনি গুগল সার্চ ইঞ্জিনে দেখাতে চাচ্ছেন সেটা আসলেই আপনার কি না সেটার প্রমাণ মনে করতে পারেন।

তো এর জন্য আমরা দুটা অপশন পাবো একটি Domain আর একটি URL prefix সহজ পদ্ধতি হলো দ্বিতীয় তো এইখানে যে বক্স টা দেখছেন সেখানে আপনার ওয়েবসাইটের URL টি প্রবেশ করে(যেমনঃ https://techmasterbd.com) Continue করুন।

how to sumbit website on google search console

২। এখন আমাদের কে Verify Ownership একটা ধাপ দিবে এইখানে আমাদের ওয়েবসাইট টিকে ভেরিফাই  করার জন্য কয়েকটি উপায় পাবো তারপর মধ্য সহজ উপায় হলো HTML Tag এর মাধ্যমে ভেরিফাই করা। ভেরফিয়াক করার জন্য এই অপশনটি সিলেক্ট করে কোডটি কপি করুন।

verify ownership

৩। এখন আমরা যেকোডটি পেয়েছি সেটা আমাদের ওয়েবসাইটের HTML এর < head > </ head>ট্যাগের ভেতর বসাতে হবে। যাদের ওয়েবসাইট ওয়ার্ডপ্রেসে না তারা এটি করবেন। আর যারা ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ব্যবহার করেন এবং এসইও এর জন্য Rank Math বা Yoast প্লাগিন ব্যবহার করেন তারা আলাদা করে একটি অপশনই পাবেন। তো আমি যেহেতু Rank Math প্লাগিন ব্যবহার করি সেটি তে Rank Math > General Settings > Webmaster Tools গেলে Google Search Console নামের পাশে একটা বক্স পাবেন সেটিতে ঐ কোড পেস্ট করে Save Changes ক্লিক করুন।

how to verify ownership search console

৪। কোড বসানো হয়ে গেলে সার্চ কনসোলের ঐ টাবে ফিরে গিয়ে Verify বাটনে ক্লিক করুন তারপর সব ঠিকঠাক থাকলে নিচে মতো ইন্টারফেস্ট পাবেন Go To Property তে ক্লিক করুন।

৫। Start ক্লিক করে নেক্সট নেক্সট করে ফেলুন। ভেরিফাই শেষে আপনাকে Google Search Console এর ড্যাশবোর্ড নিয়ে আসবে এইখান থেকে আপনারা আপনার ওয়েবসাইট কে ম্যানেজ করতে পারবেন।

google search console dashboard

আপনাদের নতুন অবস্থায় সার্চ কনসোলটি এমন দেখাবে কিন্তু কিছু দিন পর যখন আপনার ওয়েবসাইট আস্তে আস্তে গুগলে ইনডেক্স হবে তখন আপনারা এইখানে দেখতে পারবেন কত ভিজিটর আসল কোন কীওয়ার্ড থেকে আসল ইত্যাদি বিষয়।

৬। এখন আমাদের ওয়েবসাইটের সাইটম্যাপ এড করতে হবে সার্চ কনসোলে । সাইটম্যাপ হলো এক ধরনের নকশা বলতে পারেন যেখানে ওয়েবসাইট কোথায় কি আছে সেটি দেখানো থাকে। এটি গুগল যখন আপনার ওয়েবসাইট চেক করবেন তখন এটির মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটের তথ্য তাদের কাছে জমা করবে। এটি থাকা খবুই গুরুত্বপূর্ণ যারা ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করেন তারা এসইও প্লাগিন গুলোর মধ্যে Sitemap settings পাবেন যেখানে সাইট ম্যাপের লিংকটা দেখতে পারবেন। এটি কপি করুন বা ডোমেইনের পরের অংশ কপি করুন।

৭। সাইট ম্যাপের লিংক কপি করা হয়ে গেলে সার্চ কনসোলে এসে বাম পাশ থেকে Sitemaps চলে গেলেন নিচের স্ক্রিনশটের মতো দেখতে পারবেন এখানে Add a new sitemap এ আপনার সাইটম্যাপের নাম মানে শেষের অংশটি দিয়ে সাবমিট করুন।

how to sumbit sitemap on google

তাহলে আপনাআর কাজ শেষ এখন আপনার ওয়েবসাইটে গুগল ক্রল করা শুরু করবে কয়েকদিনের মধ্যে এবং আপনার ওয়েবসাইট গুগলে দেখানো শুরু করবে। আপনার যেসব আর্টিকেল গুলো ছিল সেই গুলো ইনডেক্স হয়ে যাবে এবং তারপর যেসব নতুন আর্টিকেল লেখবেন সেইগুলো অটো ইনডেক্স হয়ে যাবে।

এখন আপনার করণীয় কি?

আমি তো শুধু আপনাদের কে দেখালাম কিভাবে আপনার ওয়েবসাইটটি গুগল সার্চ কনসোলে জমা দিবেন কিন্তু এরপরেও আরো কিছু বিষয় আছে। আপনাকে একটূ কষ্ট করে ডিটেইলস শিখতে হবে Google Search Console এর ভেতর থাকা অপশন গুলোর কোনটার কি কাজ। সেটি জানার জন্য ইউটিউব বা গুগলে সুন্দর করে সার্চ দিবেন Google Search Console Overview or How to use google search console.

আশা করি, আপনাদের আজকে একটি নতুন জিনিস শিখাতে পেরেছি ভালো লাগলে অবশ্যই আমাদের এই আর্টিকেলটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন।

ধন্যবাদ

আরো পড়ুনঃ

১ মেগাবাইটের সেরা ৫টি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ।

ভিপিএন কি? ভিপিএন ব্যবহারের সুবিধা।

ভিপিএন কি? ভিপিএন ব্যবহারের সুবিধা।

মোবাইল স্লো সমস্যার সমাধান নিয়ে নিন।

Techmaster BD

প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য ও টিপস এন্ড ট্রিক জানতে ও জানাতে পছন্দ করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
error: Content is protected !!